অমৃৎ মহোৎসবে আজাদি বীরগাঁথা, পর্ব – ১, ময়না কুমারী

আগস্ট ০৪, ২০২২ রাত ০২:০৫ IST
62eadbc9ec89e_maina kumari 1

অমৃতবাজার এক্সক্লুসিভ - ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের এক অন্যতম নায়ক ছিলেন নানা সাহেব, তাঁরই দত্তক কন্যা ময়না কুমারী । ১৮৫৭ সালের ৩ রা সেপ্টেম্বর এই বীর কন্যা মাত্র ১৩ বছর বয়সেই শহীদ হন । তাঁর বীরত্বের কাহিনী জানলে আজও গায়ে কাঁটা দেয় । অনেকেই ভাবেন ঐ শিশু বয়সে কীভাবে এতটা দৃঢ় মনবল ছিল ?

বীর কন্যা ময়না কুমারীর কাহিনী জানতে হলে যেতে হবে স্বাধীনতা সংগ্রামের শুরুতে । 

১৮৫৭ সালে সালের স্বাধীনতা সংগ্রামের শুরুতে ভারতীয় বিপ্লবীরা জয়ী হতে শুরু করেছিল, তবে কিছু সময় পরে ব্রিটিশরা আবারও জয়ী হতে শুরু করে । এমন সময় নানা সাহেব পেশওয়া ভারতীয় যোদ্ধাদের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন । পরিস্থিতি ঘুরে যাওয়ায় সহযোদ্ধারা নানা সাহেবকে পরামর্শ দেয় বিথুর প্রাসাদ ত্যাগ করার । তাঁদের পরিকল্পনা ছিল সেই সময় নিরাপদ স্থানে গিয়ে পুনরায় সেনাবাহিনী সংগ্রহ করা এবং ব্রিটিশদের সঙ্গে নতুন করে মুখমুখি হওয়া । 

প্রাসাদ ত্যাগ করার সময় বাঁধ সাধে নানা সাহেবের দত্তক কন্যা ময়না কুমারী । পিতার দেশ সেবার কাজে যাতে কোনোরকম বাধা না আসে সেই কারণেই বিথুর প্রাসাদে তিনি থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন । ময়না মনে করেছিলেন তাঁর নিরাপত্তার ভাবনা পিতার দেশ সেবার কাজে বাধা আনতে পারে । ১৩ বছর বয়সি কন্যার এমন সিদ্ধান্তে বিচলিত হয়েছিলেন তাঁর পিতা নানা সাহেব, তবে নিজের সিদ্ধান্তে অটল ছিলেন ময়না কুমারী । পিতাকে আশ্বাস দেন ময়না, - 'আমি একজন বিপ্লবীর মেয়ে, আমি আমার শরীর ও নারীর ধর্ম রক্ষা করতে ভালো করে জানি । নিশ্চিন্ত থাকুন, আমি নিজেকে রক্ষা করার জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো । কন্যার এই প্রতিশ্রুতিতে শান্ত হয়ে নানা সাহেব প্রাসাদ ত্যাগ করে যুদ্ধে রওনা হয়েছিলেন ।

ময়না প্রাসাদের সমস্ত গোপন পথ ও অন্ধকূপ সম্পর্কে অবগত ছিল । সেই কারণেই বৃটিশ সৈন্যরা তাকে বন্দী করতে গেলে অনায়াসেই সেখান থেকে অদৃশ্য হয়ে যান তিনি । একটি ১৩ বছর বয়সি শিশু কন্যাকে ধরতে না পেরে ক্ষোভে গোটা প্রাসাদটিই ধ্বংস করে দেয় বৃটিশ সৈন্যরা । গভীর রাতে ময়না কুমারী যখন তার গোপন আস্তানা থেকে বেরিয়ে এলেন, তখন তিনি জানতেন না যে, প্রাসাদ ধ্বংসের পরও সেখানে কিছু বৃটিশ সৈন্য মোতায়েন ছিল । সেই সময় ২ জন সৈন্য তাকে আটক করে জেনারেল আউটরামের সামনে হাজির করে । 

ময়না কুমারীকে বাচ্চা মেয়ে মনে করে প্রথমে ভালোবেসে বুঝিয়ে তাঁর পিতার সন্ধান চাইলে ময়না নিরব থাকে । সেই দেখে তাকে জীবন্ত পুড়িয়ে মারার ভয় দেখায়, কিন্তু তাতেও ময়না বীর দর্পে নিজের ব্যক্তিত্ত ধরে রেখেছিলেন । ময়না কুমারীর এই জেদ দেখে ক্ষিপ্ত হয়ে আউটরাম প্রথমে তাকে একটি গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখে। তারপর ময়নার কাছে নানা সাহেব ও তাঁর বিপ্লবের গোপন তথ্য জানতে চায়, তবে ময়না কিছুতেই মুখ খোলেননি । সেই সময়, ময়না আউটরামকে স্পষ্টভাবে বলেছিলেন, “আমি একজন বিপ্লবীর কন্যা, মৃত্যুকে ভয় আমি পাই না ।”  আউটরাম ১৩ বছর বয়সি শিশু কন্যার থেকে এমন কথা শুনে স্তব্ধ হয়ে যান, ও প্রতিহিংসা পরায়ন হয়ে ময়না কুমারীকে জীবন্ত পুড়িয়ে মারার নির্দেশ দেন ।

নির্মম সৈন্যরাও আউটরামের নির্দেশ পালন করেছিল। একটি গাছের সঙ্গে ময়না কুমারীকে বেঁধে, গায়ে আগুন লাগিয়ে জীবন্ত পুড়িয়ে দেয় তারা । দিনটি ছিল ১৮৫৭ সালের ৩ রা সেপ্টেম্বর । ঐ দিন রাতে মাত্র ১৩ বছর বয়সী ময়না নিঃশব্দে আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায় তাঁর এই বলিদানের উদ্দেশ্য ছিল বিপ্লবের মশাল যেন কখনো নিভে না যায় । এইভাবে, তিনি দেশের জন্য আত্মত্যাগকারী শিশুদের তালিকায় তাঁর নাম লেখেন ।

আরও পড়ুন

ভুয়ো তালিকা প্রকাশ হতেই পদ থেকে ইস্তফা ভূগোল শিক্ষকের , তীব্র উত্তেজনা বনগাঁয়
ডিসেম্বর ০৪, ২০২২

অযোগ্যদের তালিকা প্রকাশ করার পরেই পদ থেকে ইস্তফা শিমূল কুমার বিশ্বাসের

বন্ধুকে বিশ্বাস করি , মোদির প্রশংসায় পঞ্চমুখ ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি ইমানুয়েল
ডিসেম্বর ০৪, ২০২২

মোদিই আমাদের একত্রিত করে এক শান্তির বিশ্ব গড়তে সাহায্য করবেন , বার্তা ম্যাক্রোঁর

১০০০তম ম্যাচের নজির লিওনেল মেসির
ডিসেম্বর ০৪, ২০২২

৩-২ অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট আর্জেন্টিনার

ঝাড়খন্ড থেকে গ্রেফতার বগটুই অগ্নিকান্ডের মূল অভিযুক্ত লালন শেখ
ডিসেম্বর ০৪, ২০২২

গত ২১ মার্চের পর থেকে পালিয়ে বেড়াচ্ছিলেন , টাকা ফুরিয়ে যেতেই সিবিআইয়ের জালে লালন

রাতভর এলাকায় চিরুনি তল্লাশি , হটুগঞ্জ থেকে গ্রেফতার ৩৫
ডিসেম্বর ০৪, ২০২২

ধৃতদের রাজনৈতিক রঙ না দেখেই গ্রেফতার করা হয়েছে , দাবি পুলিশের

প্রথা ভেঙে প্রথমবার বিশাখাপত্তনমে পালিত হচ্ছে নৌবাহিনী দিবস
ডিসেম্বর ০৪, ২০২২

রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর উপস্থিতিতে অপারেশনাল ডেমোনস্ট্রেশনে নৌবাহিনীর যুদ্ধের দক্ষতা প্রদর্শন 

শারীরিক সুস্থতার কথা স্বয়ং জানালেন পেলে ,স্বস্তি ব্রাজিল ভক্তদের
ডিসেম্বর ০৪, ২০২২

পেলের শারীরিক সুস্থতার প্রার্থনা গোটা বিশ্ব

নিজেদের পরীক্ষা করুন, বংশ পরিচয় দেখুন , অভিষেককে তীব্র কটাক্ষ দিলীপের
ডিসেম্বর ০৪, ২০২২

১৩ বছর লাগলো গরিবদের বাড়ি পৌঁছতে , এখন এসব করে লাভ নেই , অভিষেককে তোপ দিলীপের

রাজ্য সড়কে ট্রাক ও বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ভয়াবহ দুর্ঘটনা , আহত ১৫
ডিসেম্বর ০৪, ২০২২

ট্রাকের ধাক্কায় জেরে পুড়ে ভস্মীভূত বাস , পলাতক চালক সহ খালাসি

আমি একজন আর্মি অফিসারের মেয়ে , বংশের পরম্পরাটাই বহন করছি , দাবি সোমা বন্দ্যোপাধ্যায়ের
ডিসেম্বর ০৪, ২০২২

বি এড কলেজ পুনর্নবীকরণ দুর্নীতি মামলায় মুখ খুললেন সোমা বন্দ্যোপাধ্যায় 

আজ থেকে শুরু ভারত-বাংলাদেশের ওয়ানডে সিরিজ
ডিসেম্বর ০৪, ২০২২

ভারতীয় সময় অনুযায়ী ১১.৩০ মিনিট নাগাদ শুরু হবে ম্যাচ

আশঙ্কাজনক অবস্থায় শিশু , হাসপাতালে ভর্তি করাতে গিয়ে নাকানিচবানি পরিবারের
ডিসেম্বর ০৪, ২০২২

দিনভর হন্যে হয়ে ঘুরলো পরিবার , সংবাদমাধ্যম আসরে নামতেই এসএসকেএম সুপারের উদ্যোগে ট্রমা কেয়ার ইউনিটে শিশুকে ভর্তি

রেললাইনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা ব্যক্তির , ছিন্নভিন্ন দেহ
ডিসেম্বর ০৪, ২০২২

শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখার ক্যানিং-মাতলা ষ্টেশনের মধ্যবর্তী রেল লাইনে এক অঞ্জাত পরিচয় ব্যাক্তির খন্ডবিখন্ড দেহ উদ্ধার

পুলিশের তৎপরতায় ছিনতাই হওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই উদ্ধার মোটর বাইক
ডিসেম্বর ০৪, ২০২২

বচসার প্রকোপে ভয় দেখিয়ে আচমকাই বাইকটি ছিনতায় করে পালিয়ে গিয়েছিল দুষ্কৃতীরা

সভা থেকে ফেরার পথে তৃণমূল বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত দিনহাটা , আহত ২
ডিসেম্বর ০৪, ২০২২

তৃণমূল কর্মীদের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

ভিডিয়ো