ভারতীয় ছেলে গুলিবিদ্ধ হয়ে বাংলাদেশে চিকিৎসাধীন

এপ্রিল ১২, ২০২১ দুপুর ১০:০৮ IST
6073682b1288b_IMG_20210412_024554

নিজস্ব প্রতিনিধি, কোচবিহার - কোচবিহারে গুলিবিদ্ধ মিলন মিয়াঁ বাংলাদেশের কুড়িগ্রাম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ডান পাঁজরে গুলিবিদ্ধ মিলন মিয়াঁর দাবি, নির্বাচনী সহিংসতার কারণে ভারতের কোচবিহার জেলার সাহেবগঞ্জ থানায় কার্ফু জারি ছিল। শনিবার সন্ধ্যায় কার্ফু চলাকালীন সে বাড়ির বাইরে বের হলে চৌধুরীর হাট এলাকায় গুলিবিদ্ধ হয় তিনি। 

গুরুতর আহত অবস্থায় প্রতিবেশীরা চিকিৎসার জন্য তাকে বাংলাদেশের কুড়িগ্রামে তার নানার বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। মিলন শনিবার রাতে ফুলবাড়ি উপজেলার অনন্তপুর সীমান্তের আন্তর্জাতিক সীমান্ত পিলার ৯৪৬/৫ এস-এর কাছ দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে।

রবিবার ভোর ৪ টে নাগাদ পুলিশ কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে মিলনকে ভর্তি করে। বর্তমানে তার অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, মিলনের পাঁজরের ডান দিকে গুলি লেগেছে। 

অন্যদিকে বিএসএফ বলছে, সীমান্তে মাদক পাচারের সময় তাকে গুলি করা হয়েছিল। মিলনের বাড়ি পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহার জেলার সাহেবগঞ্জ থানার মাইদালের কুঠি গ্রামে। তার বাবার নাম জগু আলম। মিলনের নানা মকবুল হোসেন জানান, দীর্ঘদিন ধরে তার মেয়েজামাই এবং তিন নাতি ভারতে বসবাস করছে। তারা ভারতের নাগরিক। মিলন ভারতে গুলিবিদ্ধ হয়ে তাঁর বাড়িতে আসে। মিলনের অবস্থার অবনতি হলে রবিবার ভোরে চিকিৎসার জন্য তাকে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ-এর (BGB) লালমনিরহাট ১৫ ব্যাটেলিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল তৌহিদুল আলম বলেন, এ ঘটনায় সকালে বিএসএফের সঙ্গে পতাকা বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে বিএসএফ জানায়, কাঁটাতারের বেড়ার কাছে মাদক চোরাচালানের সময় বাংলাদেশী ভেবে মিলনকে গুলি করা হয়। পরে আহত অবস্থায় সে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করে।  

ভিডিয়ো